সমালোচনায় বাধা দেব না: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেধক
  • প্রকাশিত : বুধবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৯
  • ২৮২ দেখেছেন
সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

সংসদে বিরোধী দল যাতে সমালোচনা করতে পারে সে জন্য সরকারি দল বাধা দেবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার একাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশনে দেয়া সংক্ষিপ্ত ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ কথা জানান।

সরকারপ্রধান বলেন, গণতান্ত্রিক ধারায় সমালোচনা সব সময় গুরুত্বপূর্ণ। আমি এটুকু আশ্বাস দিতে পারি যে এই সমালোচনা আমাদের বিরোধী দলে যারা আছেন তারা যথাযথভাবে করতে পারবেন। এখানে আমরা কোনো বাধা সৃষ্টি করব না।

এ সময় তিনি বলেন, এর পূর্বে যখন দশম সংসদ চলেছে- একটা চমৎকার পরিবেশের মধ্য দিয়ে পরিচালিত হয়েছিল। আর এ জন্যই মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করা সম্ভব হয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আবার যেহেতু আমরা সংসদে নির্বাচিত হয়ে এসেছি অবশ্যই জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করে বাংলাদেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাব।

উল্লেখ্য, গেল ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৫৮টি আসনে বিজয়ী হয় শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ।

অন্যদিকে বিরোধী দল বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ৮টি আসনে জয়ী হয়। তবে তারা এ ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে নতুন নির্বাচন দাবি করেছে।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের শরিক হিসেবে ২২টি আসনে জয়ী হয়েছে জাতীয় পার্টি। ফলে সংসদে বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টিই বসছে।

এছাড়াও ক্ষমতাসীনদের শরিক দল ওয়ার্কার্স পার্টি এবং জাসদও সংসদের বিরোধী দলের ভূমিকা নেবে বলেও ১৪ দল থেকে বলা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়কে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে যাত্রী হওয়ার ঘটনায় একজন প্রতিমন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো নিয়ে কথা বলার সময় সম্প্রতি জুনাইদ আহমেদ পলকের মাথায় হেলমেট ছাড়া বাইকে চড়ে সচিবালয়ে যাওয়ার ঘটনা উল্লেখ করে সাংবাদিকরা ওবায়দুল কাদেরকে প্রশ্ন করেন।

তিনি বলেন, ওই প্রতিমন্ত্রী সড়কে হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেলে যাত্রী হওয়ার ঘটনায় আমার কাছে ভুল স্বীকার করেছেন।

‘তাকে আমি এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করেছিলাম। পরে তিনি এ ঘটনায় ভুল বুঝতে পেরে দুঃখ প্রকাশের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন ঘটনা ঘটবে না বলে আমাকে কথা দিয়েছেন।’

নতুন সরকারে শপথ নেয়ার পর দিন মঙ্গলবার দুপুরে আগারগাঁওয়ের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগে দ্রুত যেতে পলক মোটরবাইকে সওয়ার হয়েছিলেন।

মোটরবাইকে চেপে অফিসযাত্রার ছবি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের টাইমলাইনেও পোস্ট করেন পলক। তাতে তাকে হেলমেট ছাড়া অবস্থায় দেখে সমালোচনা করেন অনেকে।

আইনপ্রণেতা হিসেবে হেলমেট না পড়ে মোটরযান আইন ভাঙায় ফেসবুকে পলকের পোস্টেই সমালোচনা করেন অনেকে।

এ প্রসঙ্গে পলক পরে সাংবাদিকদের বলেন, তাড়াহুড়ো করে যাওয়ার জন্য আমি যে বাইকের সাহায্য নিয়েছি, তার কাছে কোনো বাড়তি হেলমেট ছিল না। আর ওটা রাইড শেয়ারিংয়ের বাইকও ছিল না, ব্যক্তিগত বাইক ছিল।

হেলমেট ছাড়া বাইকে সওয়ার, পলকের দুঃখ প্রকাশ